চট্টগ্রামে ওয়াই–ফাই ব্যবহার নিয়ে দোকানি খুন

ওয়াই–ফাই ব্যবহার নিয়ে বিরোধে নগরের বায়েজিদ থানাধীন আমিন জুট মিলসংলগ্ন এলাকায় গতকাল বুধবার সকালে খুন হয়েছেন এক দোকানি। হত্যাকাণ্ডের পর পুলিশ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

নিহত দোকানির নাম আবুল কালাম (২৫)। তিনি বায়েজিদের আমিন কলোনির বাসিন্দা আবদুর রহমানের ছেলে। এই কলোনি এলাকায় কালামের মুঠোফোন মেরামতের একটি দোকান রয়েছে। আর গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নাম মোশাররফ হোসেন। 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, নিহত আবুল কালামের দোকানের পাশে স্থানীয় মোহাম্মদ মামুন নামে আরেকজনের পোশাক তৈরির যন্ত্র মেরামতের একটি দোকান আছে। মঙ্গলবার রাতে দুই দোকানির মধ্যে ওয়াই–ফাই ব্যবহার নিয়ে ঝগড়া হয়। এর জের ধরে গতকাল সকালে পোশাক তৈরি যন্ত্র মেরামতের দোকানি মোহাম্মদ মামুন ও তাঁর ভাই মোশাররফ হোসেন সাত–আটজন লোক নিয়ে চড়াও হন আবুল কালামের ওপর। দোকানের সামনে তর্ক–বিতর্কের একপর্যায়ে আবুল কালামকে ছুরিকাঘাত করা হয়। চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়ার পর কালামকে মৃত ঘোষণা করেন জরুরি বিভাগের চিকিৎসকেরা। 

বায়েজিদ থানার ওসি আতাউর রহমান খোন্দকার বলেন, নিহত আবুল কালামের দোকানে ওয়াই–ফাইয়ের সংযোগ রয়েছে। পাশের দোকানি মামুন তা ব্যবহার করে আসছিলেন। কালাম বাধা দিলে দুজনের মধ্যে মঙ্গলবার রাতে তর্ক বেধে যায়। এর জের ধরে মামুন লোকজন নিয়ে কালামের ওপর চড়াও হন। ছুরিকাঘাতে কালাম মারা যান।  খবরঃ প্রথম আলো

ওসি আতাউর আরও বলেন, এই ঘটনায় মামুনের ভাই মোশাররফকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কিন্তু মামুন পলাতক। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সাত–আটজন জড়িত।

Related Posts

Add Comment