প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ৩ জনের বিষপান

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় পারিবারিক দ্বন্দ্ব ও প্রেমে ব্যর্থ হয়ে দুই নারীসহ তিনজন বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন। তাদের তিনজনকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

বিষপান করে হাসপাতালে ভর্তি তিনজন হলেন উপজেলার আস্কর গ্রামের পরিমল বালার স্ত্রী সুপ্রিয়া সাহা (২২), উপজেলার কোদালধোয়া গ্রামের কমলেশ মন্ডলের স্ত্রী দেবিকা মন্ডল (১৮) ও উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের উত্তর শিহিপাশা গ্রামের আনন্দ হালদারের ছেলে অমৃত হালদার (১৮)।

দেবিকা মন্ডলের স্বামী কমলেশ বলেন, দেড় মাস আগে আমাদের বিয়ে হয়। বিয়ের আগে আমার স্ত্রীর সঙ্গে এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। দেবিকার অমতে আমার সঙ্গে বিয়ে দেয় তার পরিবার। বিয়ের পর থেকে সংসার করবে না বলে প্রতিদিনই আত্মহত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল সে। যার ধারাবাহিকতায় রোববার দুপুরে বিষপান করে দেবিকা।

সুপ্রিয়া সাহার স্বজনরা জানান, পরিমল বালার সঙ্গে আট মাস আগে বিয়ে হয় সুপ্রিয়া সাহার। স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া করে দুপুরে সুপ্রিয়া সাহা বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অমৃত হালদারের স্বজনরা জানান, অমৃত হালদার তার পছন্দের মেয়েকে বিয়ের কথা পরিবারকে জানালে পরিবার রাজি না হওয়ায় অভিমান করে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্ট করেছেন। খবরঃ জাগো নিউজ ২৪ 

বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মনিরুল ইসলাম বলেন, তিনজনই বিষপান করেছেন। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে আনা হয়েছে। বর্তমানে তাদের চিকিৎসা চলছে।

Related Posts

Add Comment