যানজট উঠেছে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে

গুলিস্তানে যানজট এতটা তীব্র আকার ধারণ করেছে যে তা মেয়র হানিফ ফাইওভারেও উঠে গেছে।

মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) সকালে ঢাকার দক্ষিণ-পূর্ব অংশের গুরুত্বপূর্ণ এ ফ্লাইওভারে এক কিলোমিটারেরও বেশি দীর্ঘ যানজট দেখা গেছে।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গুলিস্তান আসতে ফ্লাইওভারের উপর যানজট দেখা গেছে। ফ্লাইওভার হয়ে গুলিস্তান থেকে টিকাটুলি পর্যন্ত যানজটের কারণে ভোগান্তিতে পড়ে অফিসমুখী মানুষ। ফলে অনেককে নিরুপায় হয়ে বাস থেকে নেমেই হেঁটে গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে।

গুলিস্তানের ফুলবাড়িয়া এলাকার একটি মার্কেটের বিক্রয় কর্মী জামাল হোসেন বলেন, সকাল সাড়ে ৯টায় শনির আখড়া থেকে বাসে উঠেছি, ফ্লাইওভারের উপর দিয়ে মাত্র ১০ মিনিটে গুলিস্তান আসার কথা। কিন্তু আজ আসতে প্রায় এক ঘণ্টা লাগল।

Jam-Hanif-Fliover

মাতুয়াইলের মেডিকেল থেকে গুলিস্তান পর্যন্ত চালাচলকারী শ্রাবণ পরিবহনের এক চালক আনোয়ার হোসেন বলেন, ফ্লাইওভারে উঠলে আমাদের ১৭৩ টাকা টোল দিতে হয়। তার উপর যদি ১০ মিনিটের পথে এক ঘণ্টা বসে থাকতে হয় তবে মালিকের জমা দিয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে বাঁচতে পারব না।

গুলিস্তানে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের কর্মী ফরিদ হোসেন বলেন, গুলিস্তান অংশে টোল প্লাজা পার হয়ে গাড়িগুলো ঘোরানো হয়। আজ গাড়ির চাপ বেশি। গাড়ি ঘুরতে সময় লাগছে, ফলে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

Jam-Hanif-Fliover

এছাড়া গুলিস্তানে সব সড়কে যানজট দেখা গেছে। জিরো পয়েন্ট মোড়, গোলাপশাহ মাজার মোড়, বঙ্গবন্ধু স্কয়ার মোড়েও রয়েছে তীব্র যানজট। খবরঃ জাগো নিউজ ২৪ 

মোটরসাইকেল নিয়ে রায়সাহেব বাজার থেকে বসুন্ধরা যাচ্ছেন ইসমাইল হোসেন। গুলিস্তানে গোলাপশাহ মাজার এলাকায় যানজটে কথা হয় তার সঙ্গে। তিনি বলেন, গুলিস্তান এলাকায়ই টানা আধাঘণ্টা ধরে আটকে রয়েছি। তীব্র গরম আর দুঃসহ যানজটে প্রাণ বেরিয়ে যাওয়ার উপক্রম।

Related Posts

Add Comment