মায়ের কাছে ধর্ষণের কথা বলল ৬ বছরের শিশু

রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মাজবাড়িতে ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। ১৪ বছরের এক কিশোর ওই শিশুকে ধর্ষণ করেছে বলে মামলা করেছেন শিশুটির মা।

মামলার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দুপুরে ধর্ষণে অভিযুক্ত কিশোর রাকিব গাজীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রাকিব গাজী কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ি ইউনিয়নের পাঁচুরিয়া গ্রামের কুদ্দুস গাজীর ছেলে।

মামলার বাদী শিশুটির মা বলেন, আমার ছয় বছরের শিশুটি স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণিতে পড়ে। ১ আগস্ট ইউনিয়নের পাঁচুরিয়া গ্রামের কুদ্দুস গাজীর বাড়িতে খেলতে যায় আমার মেয়ে।

এ সময় কুদ্দুস গাজীর বড় মেয়ে তাকে খেতে দেয়। খাওয়া শেষে হাত ধুতে গেলে কুদ্দুস গাজীর ছেলে রাকিব গাজী হাত ধরে টেনে নিয়ে যায় এবং আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে।

বিকেলে মেয়েটি বাড়িতে এসে ঘুমিয়ে পড়ে। পরদিন তলপেটে ব্যথা অনুভব করে মেয়েটি। সেই সঙ্গে বমি করতে থাকে। সে সময় ব্যথার কারণ জানতে চাইলে ঘটনাটি খুলে বলে মেয়ে। তাৎক্ষণিক মেয়েকে পাংশা উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় বিচারের দাবি জানিয়ে মঙ্গলবার সকালে কালুখালী থানায় রাকিব গাজীকে আসামি করে মামলা করেছি আমি।

কালুখালী থানা পুলিশের ওসি শহিদুল ইসলাম বলেন, শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলার প্রেক্ষিতে ধর্ষণে অভিযুক্ত রাকিব গাজীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শিশুটিকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Related Posts

Add Comment