ধর্ষণের পর মেরে মেয়েটিকে ফেলা হয় পরিত্যক্ত বগির শৌচাগারে

রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেনের পরিত্যক্ত বগির শৌচাগার থেকে উদ্ধার করা মাদ্রাসাছাত্রীর ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। ময়নাতদন্তে তাঁকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়।

ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রভাষক প্রদীপ বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, মেয়েটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। তাঁর শরীরে নির্যাতনের চিহ্নও পাওয়া গেছে। ধর্ষণের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেয়েটিকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। আরও নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে প্রতিবেদন পেলে পরিপূর্ণ প্রতিবেদন দেওয়া যাবে।

গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকা রেলওয়ে পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

ওই তরুণীর নাম আসমা আক্তার (১৮)। তিনি পঞ্চগড়ের বাসিন্দা। পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, আসমা স্থানীয় এক মাদ্রাসার ছাত্রী ছিলেন।

ঢাকা রেলওয়ে (কমলাপুর) থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রুশো বণিক প্রথম আলোকে বলেন, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে পুলিশ ওই লাশের বিষয়ে জানতে পারে। পরে স্টেশনের বলাকা এক্সপ্রেসের একটি পরিত্যক্ত বগির শৌচাগার থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

Related Posts

Add Comment